জেনে নিন ছবি তোলার কতদিন পর এনআইডি কার্ড হাতে পাবেন

জেনে নিন ছবি তোলার কতদিন পর এনআইডি কার্ড হাতে পাবেন।

আপনি কি নতুন ভোটার হয়েছেন?কিন্তু এখনো NID কার্ড হাতে পাননি!তাহলে জানুন ছবি তোলার কতদিন পর NID কার্ড হাতে পাবেন।ছবি তোলার পর এনআইডি হাতে না পেলেও বা কি করবেন?

সাধারণত বায়োমেট্রিক তথ্য দেওয়ার ১ মাস পর NID কার্ড পাওয়া যায়।তবে নির্বাচন কমিশনের প্রযুক্তির কিছু ত্রুটির কারনে মাজে মধ্যে একটু দেরি লাগে।

তাই আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে আমরা জানবো ছবি তোলার সর্বোচ্চ কতদিন পর NID আইডি কার্ড হাতে পাওয়া যায়।

সাধারনণত ছবি তোলার ১ মাসের মধ্যে NID কার্ড হাতে পাওয়া যায়।কিন্তু যারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার নিবন্ধন করে সেক্ষেত্রে আইডি কার্ড পেতে ২-৩ মাস সময় লাগে।

এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে নির্বাচন কমিশনের বিভিন্ন কাজের কারনে আইডি কার্ড পেতে ২-৩ মাস বা এরও বেশি সময় লেগে যায়।

আপনার ছবি সহ বায়োমেট্রিক তথ্য জমা দেওয়ার পর ভোটার আইডি কার্ড পেতে বিভিন্ন সময়ের উপরে নির্ভর করে।কারন প্রসেসিং এর সময়,প্রাপ্ত আবেদনের পরিমাণ ও সিস্টেম এর দক্ষতার উপরে নির্ভর করেই NID কার্ড দেওয়ার সময় নির্ধারণ হয়।

তবে অতিরিক্ত দেরি হলে বিলম্ব না করে অনলাইনের মাধ্যমে আপনার NID কার্ড ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

NID কার্ড পাওয়ার উপায়

NID কার্ড পাওয়ার উপায় হলো এনআইডি কার্ডের জন্য আবেদন করা।আবেদনের জন্য কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য লাগবেঃ-

১.NID কার্ড হাতে পাওয়ার জন্য প্রথমে আপনার একটি আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে হবে।

২সংগ্রহকৃত ফরমটি আপনার জন্ম নিবন্ধন এর তথ্য অনুযায়ী নির্ভুল ভাবে পূরণ করে নিবেন।

See also  জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক apps। অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়ম 2023

৩.নির্বাচন কমিশনে আপনার জন্ম নিবন্ধন সহ সকল প্রয়োজনীয় তথ্য জমা দিবেন।

৪.পরে তাদের দেওয়া একটা নির্দিষ্ট সময় অনুযায়ী ছবি ও বায়োমেট্রিক তথ্য দিয়ে আসবেন।

৫.আপনার আবেদন সম্পূর্ণ হওয়ার পর কয়েকমাস আপনার অপেক্ষা করতে হবে।

৬.আপনি চাইলে অনলাইনে আপনার আইডি কার্ড চেক করতে পারেন।

০৭.ভোটার আবেদন অনুমোদিত হলে আবেদনকারী অনলাইন থেকেও ডাউনলোড করে কাজ চালিয়ে যেতে পারবে।

শেষ কথা

পিয় পাঠক পাঠিকারা, জেনে নিন ছবি তোলার কতদিন পর এনআইডি কার্ড হাতে পাবেন এই পোষ্ট আমি তা সহজ করে দিয়েছি।এরপরও যদি আপনার এই বিষয়ে আরোও কিছু জানার থাকে তাহলে নিচের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানান।