ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করার ৫টি সহজ পদ্ধতি ২০২৩

আজকের এই অনুচ্ছেদে আমরা ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) কিভাবে করে তার সম্পর্কে একটি বিস্তারিত আলোচনা করবো। পাসপোর্ট হচ্ছে একটি পরিচয়পত্র যার মাধ্যমে আপনি একটি দেশের অভ্যন্তর ও বাইরে ভ্রমণ, বিভিন্ন সেবা গ্রহনে, অংশগ্রহন করার সুযোগ করে দেয়।

পাসপোর্ট অনুসন্ধান করার দরকার পড়ে বিভিন্ন সমস্যা বা পাসপোর্টের বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে অবগত থাকার জন্য। অনেক সময় Pending SB Police Clearance, Pending Backend Verification, Sent for Rework ইত্যাদি সমস্যায় দেখা দেয়। ফলে আপনার পাসপোর্ট বাতিল হয়ে যেতে পারে। এই জন্য ই খু-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করা খুব জরুরী।

৫টি ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করার সহজ পদ্ধতি ২০২৩

বর্তমান সময়ে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য বাংলাদেশ সরকার ই-পাসপোর্ট সেবা চালু করেছে। ফলে আগের সনাতন প্রক্রিয়া দিন দিন লুপ্ত হতে চলেছে। কেননা, আগের দিনে ই-পাসপোর্ট আবেদন, ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করতে অনেক সময় সাপেক্ষ ব্যাপার ছিল।

বিভিন্ন কারণে পাসপোর্ট চেক করার দরকার পড়ে। কখনো আপনার জানার ইচ্ছা থেকেই আপনি আপনার ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করতে পারেন। অনেক সময় Passport টি ছাপা হয়েছে কিনা / প্রিন্ট হয়েছে কিনা এই প্রশ্নের উত্তর জানতে হলে আপনাকে ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করার দরকার পড়তে পারে।

অনেক সময় আপনার Passport টি ঢাকা থেকে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে এসেছে কি না, অথবা প্রবাসে যারা থাকেন তারা ইচ্ছে করলেই ঘরে বসেই পাসপোর্ট চেক করতে পারেন। অনলাইনে আপনার পারপোর্ট চেক না করলে আপনি আপনার পাসপোর্টের অবস্থান সম্পর্কে জানতে পারবেন না।

এই অনুচ্ছেদে আমরা জানবো কিভাবে আপনি ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করতে পারবেন। সাথে সাথে আপনারা জানতে পারবেন কিভাবে E Passport Status Check by SMS, E Passport Check Online, MRP Passport check online, MRP passport check by SMS এবং ইমেইল আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে পাসপোর্ট চেক করতে পারবেন। নিচে ৫টি ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করার পদ্ধতি আলোচনা করা হলো।

See also  পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম 2023। E- Passport Check

পদ্ধতি-১ঃ অনলাইনে ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check)

ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করার অন্যান্য যতগুলো পদ্ধতি আছে তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং সহজ পদ্ধতি হলো অনলাইনের মাধ্যমে পাসপোর্ট চেক করা। অনলাইনের মাধ্যমে মূলত দুই ধরনের পাসপোর্ট যাচাই করা যায়। একটি হলো ই-পাসপোর্ট (E-Passport) এবং অপরটি হলো এমআরপি পাসপোর্ট (MRP Passport)। তাই কি ধরনের পাসপোর্ট আপনি যাচাই করতে চান তা অবশ্যই নিশ্চিত হতে হবে।

বর্তমানে ইন্টারনেটের অগ্রগতির জন্য ই-পাসপোর্ট (E-Passport) এর জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। তবে অনেকে এমআরপি পাসপোর্ট (MRP Passport) পাওয়ার জন্য আবেদন করে থাকে। এই দুই ধরনের পাসপোর্ট যাচাই করার প্রক্রিয়া আলাদা। কেননা, ই-পাসপোর্ট (E-Passport) আলাদা ওয়েবসাইটে প্রদান করা হয় এবং এমআরপি পাসপোর্ট (MRP Passport) আলাদা ওয়েবসাইটে প্রদান করা হয়।

বিভিন্ন কারণে ই-পাসপোর্ট (E-Passport) এবং এমআরপি পাসপোর্ট (MRP Passport) এর অবস্থান জানার জন্য আপনাকে অবশ্যই পাসপোর্ট ডেলিভারি স্লিপ নাম্বারের দরকার পড়বে। পাসপোর্ট ডেলিভারি স্লিপ নাম্বার হলো আপনি যখন পাসপোর্টের জন্য আবেদনপত্র জমা দিয়েছিলেন তার একটা ডেলিভারি স্লিপ দিবে। সেই স্লিপে যে নাম্বারটি থাকবে, সেই নাম্বারটি হলো পাসপোর্ট ডেলিভারি স্লিপ নাম্বার।

পাসপোর্ট ডেলিভারি স্লিপ নাম্বার ই-পাসপোর্ট (E-Passport) এবং এমআরপি পাসপোর্ট (MRP Passport) জন্য আলাদা আলাদা হয়ে থাকে।

আপনি যখন ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) / যাচাই করতে চাইবেন, তখন আপনাকে অনলাইন অ্যাপ্লিকেশান আইডির (Application ID) দরকার পড়বে। এমআরপি পাসপোর্ট (MRP Passport) এর জন্য এনরোলমেন্ট নাম্বার (Enrollment Number) লাগবে। ই-পাসপোর্ট এবং এমআরপি পাসপোর্ট ডেলিভারি স্লিপে সবকিছু দেওয়া থাকবে। প্রতিটি পাসপোর্ট যাচাই করতে আপনার জন্মতারিখ অবশ্যই আবেদনপত্র অনুযায়ী প্রদান করতে হবে।

নিচে এই দুই ধরনের ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করার প্রক্রিয়া গুলোকে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

ই-পাসপোর্ট চেক

অনলাইনের মাধ্যমে ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করতে হলে আপনাকে বাংলাদেশ সরকারের পাসপোর্টের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে।

উপরের দেওয়া লিংকে প্রবেশ করার পর আপনার সামনে নিচের মতো একটি ইন্টারফেস আসবে। এই Online Registration ID অথবা Application ID, ইমেইল নাম্বার এবং জন্মতারিখ দিয়ে আপনার ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করতে পারবেন।

See also  পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে মেডিকেল রিপোর্ট চেক - Passport Medical Report Check Online Bangladesh

বাংলাদেশ সরকারের ই-পাসপোর্ট চেক করতে আপনাকে “E-Passport Check” কীওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করতে হবে। ফলে আপনার সামনে বাংলাদেশ সরকারের পাসপোর্ট চেক করার জন্য কতকগুলো লিংক আসবে। তবে আপনাকে epassport.gov.bd ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে।

এমআরপি পাসপোর্ট চেক

এমআরপি পাসপোর্ট (MRP Passport) চেক করতে হলে আপনাকে অন্য একটি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। অনলাইনের মাধ্যমে এমআরপি পাসপোর্ট (MRP Passport) করতে হলে আপনাকে বাংলাদেশ সরকারের পাসপোর্টের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। আপনি চাইলে নিচের লিংকে ক্লিক করেও সরাসরি যেতে পারেন।

এমআরপি পাসপোর্ট (MRP Passport) চেক করতে হলে আপনাকে “passport.gov.bd” ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। তারপর “APPLICATION STATUS” অপশনে ক্লিক করতে হবে। তারপর আপনার ডেলিভারি স্লিপ থেকে থেকে “Enrolment ID” দিয়ে নিচের দেখনো ছবিতে বসালে এমআরপি পাসপোর্ট (MRP Passport) চেক করতে পারবেন।

বাংলাদেশ সরকারের এমআরপি পাসপোর্ট চেক করতে আপনাকে “MRP-Passport Check” কীওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করতে হবে। ফলে আপনার সামনে বাংলাদেশ সরকারের পাসপোর্ট চেক করার জন্য কতকগুলো লিংক আসবে। তবে আপনাকে “passport.gov.bd” ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। তারপর আপনাকে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করতে হবে।

পদ্ধতি-২ঃ Email ID and Password দিয়ে E-Passport Check

ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করার অনেকগুলো পদ্ধতির মধ্যে Email ID and Password দিয়ে ই-পাসপোর্ট চেক করা অন্যতম। আপনি যখন ই-পাসপোর্টের জন্য অনলাইনে আবেদন করছিলেন তখন আপনাকে যে Email ID দিয়ে আবেদন করেছিলেন তা দিয়ে আপনি ই-পাসপোর্ট চেক করতে পারবেন।

ইমেইল অ্যাড্রেস দিয়ে ই-পাসপোর্ট চেক করার জন্য আপনাকে প্রথমে ই-পাসপোর্টের সরকারি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। তারপর ইমেইল অ্যাড্রেস এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনার একাউন্টে লগ ইন করলেই আপনি আপনার ই-পাসপোর্টের বর্তমান অবস্থান জানতে পারবেন।

ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check)

উপরের ছবিতে আপনারা দেখতে পাচ্ছেন লগ ইন করে কীভাবে আমি পাসপোর্টের বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে জানতে পারলাম।

See also  টোকেন দিয়ে বের করুন আইডি কার্ড। জেনে নিন সহজ নিয়মগুলো

পদ্ধতি-৩ঃ SMS দিয়ে ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check)

SMS এর মাধ্যমে ই-পাসপোর্ট চেক করা খুব সোজা। এই পদ্ধতিতে ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করতে হলে আপনার ডেলিভারি স্লিপের প্রয়োজন পড়বে। ডেলিভারি স্লিপের উপরে ডান পাশে বারকোর্ড এর নিচে এবং উপরে বাম পাশে xxxx-xxxxxxxxx এপ্লিকেশন আইডি দেওয়া থাকবে সেটা নিচে দেওয়া ফরম্যাটে 16445 তে SMS পাঠিয়ে দিন। এসএমএস পাঠানোর ফরম্যাটটি হচ্ছে-

এসএমএস পাঠানো ফরম্যাটঃ

EPP<space>xxxx-xxxxxxxxx and Send to 16445

ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check)

উপরের ছবিতে আপনারা দেখতে পাচ্ছেন তীর চিহ্ন দিয়ে দেখানো এপ্লিকেশন আইডি। এই আইডি দিয়েই আপনি SMS এর মাধ্যমে ই-পাসপোর্ট চেক করতে পারবেন।

পদ্ধতি-৪ঃ SMS দিয়ে MRP পাসপোর্ট চেক (MRP Passport Check)

SMS এর মাধ্যমে MRP পাসপোর্ট চেক করা খুব সোজা। এই পদ্ধতিতে MRP পাসপোর্ট চেক (MRP Passport Check) করতে হলে আপনার ডেলিভারি স্লিপের প্রয়োজন পড়বে। ডেলিভারি স্লিপের উপরে ডান পাশে বারকোর্ড এর নিচে এবং উপরে বাম পাশে xxxxxxxxxxxxx “Enrolment ID” দেওয়া থাকবে সেটা নিচে দেওয়া ফরম্যাটে 6969 তে SMS পাঠিয়ে দিন। এসএমএস পাঠানোর ফরম্যাটটি হচ্ছে-

এসএমএস পাঠানো ফরম্যাটঃ

EPP<space> Enrolment ID and Send to 6969

ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check)

উপরের ছবিতে আপনারা দেখতে পাচ্ছেন তীর চিহ্ন দিয়ে দেখানো “Enrolment ID“। এই আইডি দিয়েই আপনি SMS এর মাধ্যমে MRP পাসপোর্ট চেক করতে পারবেন।

ই-পাসপোর্ট সম্পর্কিত কিছু ইংরেজি শব্দের অর্থ

ক্রমিকশব্দঅর্থ
Appointment Scheduledঅনলাইন পাসপোর্ট আবেদনে ফলে আপনার অনলাইন একাউন্টে Appointment Scheduled কথাটি উল্লেখিত থাকলে পাসপোর্ট অফিসে সাক্ষাতকারের সময় নির্ধারন করা হয়েছে।
Enrolment in Processঅনলাইনে ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) করার সময় Enrolment in Process দেখালে বুঝবেন আপনার আবেদনপত্র সঠিকভাবে পাসপোর্ট অফিসে জমা হয়েছে। বর্তমানে এই আবেদনপত্রটি প্রক্রিয়ার রয়েছে। আবেদনপত্রটি এই ধাপ শেষ হতে মোটামুটি ১-২ দিন পর্যন্ত থাকে।
Pending SB Police ClearancePending SB Police Clearance অর্থ হল আপনার পাসপোর্ট আবেদনপত্রটি পুলিশ ভেরিফিকেশনের জন্য প্রদান করা হয়েছে বা তদন্ত রিপোর্টের অপেক্ষায় আছে। প্রতিটি নতুন পাসপোর্ট আবেদনের জন্য পুলিশ ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হতে মোটামুটি ৭দিনের মত সময় লাগতে পারে। তবে, জরুরী আবেদন হলে কম সময় লাগে।
Pending Final ApprovalPending Final Approval এর অর্থ হল আপনার আবেদনপত্রটি ফাইনাল অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। আপনার পুলিশ ভেরিফিকেশন রিপোর্ট সন্তোষজনক। এইজন্য আপনার পাসপোর্টটি বর্তমানে অফিসের পরিচালক / এসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর ( AD ) অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। এমন অবস্থায় সাধারণত ২-৪ দিন সময় লাগতে পারে।
ApprovedApproved পাসপোর্ট অফিসের পরিচালক / এসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর ( AD ) পাসপোর্ট প্রিন্টের জন্য অনুমতি প্রদান করেছেন। এই ধাপ সম্পূর্ণ হতে ৩ কর্ম দিবস লাগে।
Pending in Print QueuePending in Print Queue এর অর্থ হলো আপনার পাসপোর্ট প্রিন্টের জন্য প্রডাকশন লাইনে পাঠানো হয়েছে। এই ধাপ সম্পন্ন হতে ৫-১০ কর্ম দিবস প্রয়োজন হয়। পাসপোর্টের পরিমাণ বেশী থাকলে সময় বেশী লাগতে পারে।
Passport Shipped Passport Shipped এর অর্থ হলো আপনার পাসপোর্ট সফলভাবে প্রিন্ট হয়েছে এবং তা আপনার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে পাঠানো হচ্ছে। আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে বই আসতে ১/২ দিন লাগে।
Passport Ready for IssuancePassport Ready for Issuance কথাটি অর্থ হলো আপনার পাসপোর্টটি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে এসেছে। আপনি সময় করে সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৩ টার মধ্যে এসে নিয়ে যেতে পারেন।
Passport IssuedPassport Issued কথাটি যদি আপনার অনলাইনে পাসপোর্ট আবেদনের পোর্টালে দেখতে পান তাহলে বুঝবেন, আপনার পাসপোর্ট টি সঠিক ভাবে প্রদান করা হয়েছে।

আজকের এই অনুচ্ছেদে আমরা ই-পাসপোর্ট চেক (E-Passport Check) কিভাবে করে তার সম্পর্কে একটি বিস্তারিত আলোচনা করেছি। এই অনুচ্ছেদটি পড়ে যদি আপনার উপকারে আসে তাহলে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।

About nidgov

আমি গত ৫ বছর থেকে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে কাজ করেছি। আমি আমার স্নাতক শেষ করেছি হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। আমার বিষয় ছিলো কম্পিউটার সায়েন্স এবং ইঞ্জিনিয়ারিং (ইঞ্জি.)।

View all posts by nidgov →