২০২৩ সালে অনলাইনে রিনিউ করুন ই পাসপোর্ট। জেনে নিন সহজ নিয়মগুলো

২০২৩ সালে অনলাইনে রিনিউ করুন ই পাসপোর্ট।জেনে নিন সহজ নিয়মগুলো।

আপনি কি বর্তমানে এম আর পি পাসপোর্ট রিনিউ করে ই পাসপোর্ট নিতে চান!তাহলে আজকের আর্টিকেলে আপনি জানতে পারবেন কিভাবে এম আর পি পাসপোর্ট থেকে ই পাসপোর্ট এ রিনিউ করতে হয়।

এম আর পি পাসপোর্ট থেকে ই-পাসপোর্ট এর সুবিধা অনেক বেশি।আর এই সুবিধার কারনেই অনেকে পুরাতন রিডেবল পাসপোর্ট রিনিউ করে ই-পাসপোর্ট নেয়।

২০২০ সালের প্রথম দিকে ই-পাসপোর্ট এর যাত্রা শুরু হয়।ই পাসপোর্ট এর সুবিধার দিক হলো এটা যেহেতু ইলেকট্রনিক চিপ সেহেতু পাসপোর্ট হোন্ডারে সংরক্ষত থাকে।

আপনি স্বংয়ক্রিয়ভাবে ই পাসপোর্ট এর মাধ্যমে ই-গেইটের মাধ্যমে চেকিং ছাড়াই প্রবেশ করতে পারবেন। কিন্তু এম আর পি পাসপোর্ট এর বেলায় চেক করতে লম্বা লাইন ধরতে হয়।এজন্য অধিকাংশ মানুষই ই-পাসপোর্ট করাতে চায়।

পাসপোর্ট রিনিউ করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

পাসপোর্ট রিনিউ করার জন্য আপনার প্রয়োজনীয় কিছু কাগজপত্রের প্রয়োজন পড়বে।নিচে তা দেওয়া হলো,

  • আবেদনকারীর NID কার্ডের ফটোকপি
  • আপনার বয়স যদি ১৯ বা তার কম হয় সেক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন কপি হলেও চলবে।
  • পূর্বে যদি আপনার কোনো পাসপোর্ট থাকে তাহলে সেই পাসপোর্ট এবং ডাটা পেজের প্রিন্ট কপি লাগবে।
  • আবেদন পত্রের একটা প্রিন্ট কপি।
  • তথ্য সংশোধনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র।

অনলাইনে ই পাসপোর্ট রিনিউ

আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে ই পাসপোর্ট হাতে নিতে চান তাহলে পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করতে হবে।নিচে আবেদন করার নিয়ম স্কিনসর্ট সহ দেখানো হলো,

ই পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন কারার নিয়ম জেনে নিন এখান থেকে

ই পাসপোর্ট অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে ID Documents অপশনে গিয়ে পূর্ববর্তী এম আর পি পাসপোর্ট সিলেক্ট করে নিবেন।নিচে স্কিন সর্টে দেখানো হলো

  • প্রথমে আমি আবেদনকারী হিসেবে আইডি ডকুমেন্টস অপশনে গেলাম।আইডি ডকুমেন্টস অপশনে যাওয়ার পর,Yes, I have a Machine Readable Passport অপশনটি সিলেক্ট করে নিলাম।
See also  পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে মালয়েশিয়া ভিসা চেক করার নিয়ম 2023। Malaysia Visa Check Online By Passport Number
  • দ্বিতীয় ধাপে What is the reason for your passport request এর বক্সে পাসপোর্ট রিনিউ করার কারন হিসেবে EXPIRED সিলেক্ট করলাম।
  • তৃতীয় ধাপে Previous passport number এর অপশনে আমার পূর্ববর্তী পাসপোর্ট নাম্বারটি দিয়ে দিলাম।
  • পরের ধাপে পাসপোর্ট প্রধানের তারিখ মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ দিলাম।

পরের ধাপগুলোতে প্রয়োজনীয় কিছু তথ্য দিয়ে Submit অপশনে ক্লিক করলাম আপনিও করবেন। সাবমিট করার পর সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আপনার পাসপোর্ট রিনিউ এর আবেদন হয়ে যাবে।

রিনিউ ফরম জমা দেওয়ার নিয়ম

ই পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করা৷ হয়ে গেলে নিচের নিয়মগুলো অনুসরণ করুন।

  • আবেদন কপির একটি A4 সাইজ পৃষ্ঠা।
  • মূল পাসপোর্ট প্রদর্শন।
  • রিনিউ ফি পরিশোধ।
  • প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের ফটোকপি।

চলুন এখন জেনে নেই ২০২৩ সালে পাসপোর্ট রিনিউ ফি কত

Passport রিনিউ করার ফি কিন্তু একদম নতুন পাসপোর্ট ফির সমানই।

  • ৫ বছর মেয়াদি ৪৮ পাতার পাসপোর্ট ফি পড়বে ৪০২৫ টাকা।তবে ৬৪ পাতার ক্ষেত্রে সেটা বেড়ে দাঁড়াবে ৬৩২৫ টাকা।
  • ১০ বছর মেয়াদি ৪৮ পাতার পাসপোর্ট ফি পড়বে ৫৭৫০ টাকা। এক্ষেত্রে ৬৪ পাতার পাসপোর্ট ফি পড়বে ৮০৫০ টাকা।

শেষ কথা

আজকের আয়োজনে ২০২৩ সালে অনলাইনে ই-পাসপোর্ট রিনিউ করার সহজ নিয়মগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

পাসপোর্ট রিনিউ করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, অনলাইনে ই পাসপোর্ট রিনিউ,রিনিউ ফরম জমা দেওয়ার নিয়মসহ ইত্যাদি বিষয় পরিষ্কার করেছি।

এরপরও যদি এই আর্টিকেল রিলেটেড আপনার আর কোনো সমস্যা থাকে তাহলে অবশ্যই নিচের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাবেন।