বাহরাইন ভিসা চেক করার সব থেকে সহজ নিয়ম ২০২৩।

বাহরাইন ভিসা চেক করার সব থেকে সহজ নিয়ম ২০২৩।

প্রিয় পাঠক পাঠিকা,আপনি কি বাহরাইন ভিসা পেয়েছেন বা ভিসার জন্য আবেদন করেছেন!তাহলে জানুন কিভাবে অনলাইনে আপনি বাহরাইন ভিসার স্ট্যাটাস চেক করবেন।

আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে ভিসা চেক করার নিয়ম,ভিসা পাওয়ার উপায় ইত্যাদি বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

বাংলাদেশ থেকে অনেক মানুষ কাজের বা ব্যসার জন্য,পড়াশোনার জন্য বাহরাইন এ পাড়ি জমায়।তবে সবারই বিদেশ যাওয়ার পূর্বে ভিসা চেক বা ভিসার সত্যতা নিশ্চিত করা উচিত।ভিসা চেক করার মাধ্যমে ভিসা ফেইক না ঠিক আছে সেটা জানা যায়।পরবর্তীতে বিদেশ গিয়ে প্রতারণার শিকার হতে হয় না।

আপনার জন্য প্রয়োজনীয় কিছু পোষ্টঃ

২০২৩ সালের মাল্টা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা।জানুন মাল্টা যাওয়ার খরচ।

কাতার পাসপোর্ট চেক করুন খুব সহজেই ২০২৩।

দুবাই ভিসা চেক করুন পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে ২০২৩।

বাহরাইন ভিসা চেক করতে আমাদের যা যা প্রয়োজন পড়বে

  • পাসপোর্ট নাম্বার।
  • আপনি যে আবেদন করেছেন তার আইডি বা Application Number.
  • ওয়ার্ক পারমিট।
  • আপনার আবেদন করার পর একটা ইনভয়েস দেওয়া হবে।সেখানে VIsa নাম্বার আছে সেই নাম্বার লাগবে।
  • Identity Card(বাহরাইন)

ভিসা চেক করার নিয়ম

আপনি যদি বাহরাইন ভিসা চেক করতে চান তাহলে প্রথমে আপনাকে এই লিংকে ক্লিক করে বাহরাইন অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।এরপর,

  • ওয়েবসাইটে গিয়ে Service অপশনে ক্লিক করবেন।
  • এরপর Registered Workers Eligibility লিংকে ক্লিক করুন।
  • এরপর Passport Number লিখুন এবং Country স্থানে বাংলাদেশ সিলেক্ট করুন।
  • I’m not a robot একটু কষ্ট করে টিক দিয়ে দিন।
  • তারপরে সবার শেষে Search বাটনে ক্লিক করুন।

Search বাটনে ক্লিক করার সাথে সাথে আপনার ভিসার সকল স্ট্যাটাস সামনে আসবে।আপনি সেখান থেকে আপনার ভিসা চেক করতে পারবেন।

See also  পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে সৌদি ভিসা চেক করার নিয়ম 2023 - Saudi Visa Check Online by Passport Number

কি ভয় পাচ্ছেন।ওপরের নিয়ম অনুসরণ করেও পাসপোর্ট চেক করতে পারচ্ছেন না।তাহলে চলুন আমি নিজেই পাসপোর্ট চেক করে প্রতিধাপের স্কিন সর্ট দেখাই।

  • বাহরাইনের ভিসা চেক করতে আপনাকে এই ওয়েবসাইটে ক্লিক করে প্রবেশ করতে হবে।এছাড়াও আপনি ক্রোম ব্রাউজারে গিয়ে Imra.gov.bh/en/home লিখে সার্চ করেও সোজা ওয়েবসাইটে যেতে পারেন।
  • এরপর Service মেনু থেকে Registered Worker Eligibility লিংকে ক্লিক করে পরের ধাপে যেতে হবে।

  • এই ধাপে আপনি মোট ৪টি উপায়ে আপনার ভিসা চেক করতে পারবেন।এগুলো হলো,Passport Number,Application ID,বাহরাইন এর ID Card Number, Work Permit Number.আপনি আপনার সুবিধা অনুযায়ী যে কোনো একটি সিলেক্ট করে ভিসার স্ট্যাটাস চেক করতে পারেন।আমি পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে ভিসা স্ট্যাটাস চেক করার জন্য সামনে এগোলাম।
  • Passport Number দিয়ে ভিসা চেক করার জন্য আপনাকে Passport Number দিয়ে Country এর স্থানে Bangladesh সিলেক্ট করে Search বাটনে ক্লিক করতে হবে।

এখন জেনে নেই বাহরাইন ভিসা পাওয়ার উপায় সম্পর্কে

আপনি যদি বাহরাইন ভিসা পেতে চান তাহলে প্রথমে আপনাকে ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে।

এছাড়াও বাংলাদেশে অনেক ভিসা এজেন্সি আছে তাদের মাধ্যমেও ভিসা আবেদন করতে পারেন।

যদি আপনার কোনো আত্মীয় স্বজন বাহরাইন থাকে তাহলে খুব সহজেই বাহরাইন ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

বাহরাইন ভিসার মূল্য

বাহরাইন ভিসা মূলত বিভিন্ন বিষয়ের উপরে নির্ভর করে কম বা বেশি হয়।বর্তমানে বাহরাইনে গেলে ৪-৬ লক্ষ কি খরচ হয়।তবে দালালের মাধ্যমে গেলে ৬-৮ লক্ষ টাকা পর্যন্ত খরচ হয়।

তবে অধিকাংশ মানুষ এজেন্সির মাধ্যমেই বাহরাইন যায়।যার কারনে খরচ অনেক কম লাগে।

শেষ কথা

আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে বাহরাইন ভিসা চেক করার সব থেকে সহজ নিয়ম নিয়ে উপরে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।এছাড়াও বাহরাইন ভিসার মূল্য কত ও ভিসা পাওয়ার সহজ উপায় সম্পর্কে আলোচনা করেছি।