কয়েক কোটি নাগরিকের NID এর মেয়াদ শেষ।

কয়েক কোটি নাগরিকের NID এর মেয়াদ শেষ।

আপনি জানলে অভাক হবেন! সামনে খুব দ্রুত কয়েক কোটি নাগরিকের  জাতীয় পরিচয় পত্রের মেয়াদ শেষে হতে চলেছে।

ভোটার আইডি কার্ড আবার পূনরায় পেতে গুনতে হবে ফি।আজকের এই আর্টিকেলে জানুন এর বিস্তারিত।

প্রতিটা নাগরিকের জন্যই NID বা জাতীয় পরিচয় পত্র অনেক গুরুত্বপূর্ণ। ব্যাংক,পাসপোর্ট এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানসহ সব স্থানের জন্য আইডি কার্ডের গুরুত্ব রয়েছে।

কিন্তু খারাপ সংবাদ হলো সামনে শেষ হতে চলেছে প্রায় ১ কোটিরও বেশি নাগরিকের জাতীয় পরিচয় পত্রের মেয়াদ।

নতুন করে মেয়াদ শেষ হওয়া নাগরিকদের ফি দিয়ে দ্বিতীয়বার জাতীয় পরিচয় পত্র নিতে হবে।

তো চলুন আর দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক NID এর মেয়াদ এবং পুনরায় NID কার্ড কিভাবে নিবো তার সম্পর্কে।

  এনআইডি বা জাতীয় পরিচয় পত্রের মেয়াদ

আপনি আমি যে বাংলাদেশি তার প্রমাণ বা দলিল হলো জাতীয় পরিচয় পত্র।নির্বাচন কমিশন বাংলাদেশের প্রতিটা নাগরিকদের জাতীয় পরিচয় পত্র ফ্রিতেই দিয়ে থাকে। 

আপনি কি জানেন জাতীয় পরিচয় পত্রের মেয়াদ কত থাক?জাতীয় পরিচয় পত্রের মেয়াদ ১৫ বছর থাকে।১৫ বছর পর আবার নির্দিষ্ট কিছু ফি দিয়ে পুনরায় এনআইডি কার্ড নিতে হয়।

জাতীয় নির্বাচনের আগে ২০০৮ সালে প্রায় ৮ কোটি ১০ লাখ নাগরিককে একদম বিনামূল্যে জাতীয় পরিচয় পত্র দেওয়া হয়।

বাংলাদেশে বর্তমানে মোট ১১কোটি ৯১ লাখ ৫১ হাজার ৪৪০ জন ভোটার রয়েছেন।তাহলে হিসেব অনুযায়ী দেখা যায় ২০০৮ সালের পর নতুন নাগরিক হয়েছেন ৩ কোটি ৮০ লাখ ৫১ হাজার ৪৪০ জন।

তবে নির্বাচন অফিসের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন যারা স্মার্ট কার্ড পেয়েছেন তাদের জাতীয় পরিচয় পত্রের মেয়াদ আরো পরে শেষ হবে।

আমরা জান ২০০৮ সালে হওয়ার ভোটারদের কাছে স্মার্ট কার্ড সরবরাহ করা হয়েছে।

নির্বাচান কর্মকর্তারা আরোও বলেছেন, এই পর্যন্ত তারা স্মার্ট কার্ড ছাপিয়েছে ৭ কোটি ৭৩ লাখ।কিন্তু বিতরণ হয়েছে ৬ কোটি ১ লাখ।

See also  অনলাইনে চেক করুন সিঙ্গাপুরের ভিসা।জেনে নিন সহজ নিয়মগুলো।

এই তথ্যমতে বুঝা যায়, ১ কোটিরও বেশি নাগরিকদের নতুন করে আবার এনআইডি নিতে হবে।

আপনি প্রথমবার বিনামূল্যে এনআইডি কার্ড হাতে পেলেও দ্বিতীয়বার ফি দিয়ে এনআইডি নিতে হবে।

আপনার জন্য প্রয়োজনীয় কিছু পোষ্টঃ

জাতীয় পরিচয় পত্র বাতিল করার নিয়ম।

টোকেন দিয়ে বের করুন এনআইডি কার্ড। জেনে নিন সহজ নিয়মগুলো

নতুন করে এনআইডি পাওয়ার উপায়

আপনার যদি এনআইডি কার্ডের মেয়াদ শেষ হয়ে যায়।তবে পূনরায় উপজেলা নির্বাচন অফিস এনআইডি কার্ড পাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন।
প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এবং নির্দিষ্ট ফি দিয়ে এনআইডি কার্ড হাতে নিতে পারবেন। 

শেষ কথা 

প্রিয় পাঠক পাঠিকারা, কয়েক কোটি নাগরিকের NID এর মেয়াদ শেষ হতে যাচ্ছে। ২০০৮ সালের পূর্বে নেওয়া ভোটারদেরই শুধু নতুন করে এনআইডির জন্য আবেদন করতে হবে।আপনি খুব সহজেই এনআইডির জন্য আবেদন করতে পারেন।