বাংলাদেশে vivo y16 এর দাম: জেনে নিন এই মধ্যম বাজেটের ফোনের খুঁটিনাটি

বাংলাদেশে vivo y16 এর দাম

বাংলাদেশে Vivo Y16 একটি জনপ্রিয় স্মার্টফোন, যা এর আকর্ষণীয় ডিজাইন এবং উন্নত ফিচারের জন্য পরিচিত। মাঝারি বাজেটের এই ফোনটি ব্যবহারকারীদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। Vivo Y16-এর দাম এবং ফিচার নিয়ে বিস্তারিত জানতে অনেকেই আগ্রহী। এই স্মার্টফোনটি ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশে লঞ্চ করা হয়। Vivo Y16-এর বিভিন্ন ভ্যারিয়েন্ট এবং রং ব্যবহারকারীদের আকৃষ্ট করে।

এই ব্লগে আমরা বাংলাদেশে vivo y16 এর দাম, স্পেসিফিকেশন, এবং বিভিন্ন দিক নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব। এই ফোনটির দাম বাংলাদেশের বাজারে ১৫,৯৯৯ টাকা থেকে শুরু হয় এবং এটি দুটি আকর্ষণীয় রংয়ে পাওয়া যায়: Drizzling Gold এবং Stellar Black। এছাড়া, ফোনটির ডিসপ্লে, ক্যামেরা, ব্যাটারি, এবং প্রসেসরের বিবরণও এখানে পাবেন। আপনি যদি একটি মধ্যম বাজেটের মধ্যে ভালো ফিচারের স্মার্টফোন খুঁজছেন, তবে Vivo Y16 আপনার জন্য একটি ভালো বিকল্প হতে পারে। আসুন, বিস্তারিত জানি এই স্মার্টফোনটি সম্পর্কে।

Vivo Y16 এর দাম ও মডেল

Vivo Y16 ফোনটি বিভিন্ন স্টোরেজ এবং RAM ভ্যারিয়েন্টে উপলব্ধ। বাংলাদেশে vivo y16 এর দাম নিচে উল্লেখ করা হলো:

  • 4 GB RAM + 64 GB স্টোরেজ: ১৫,৯৯৯ টাকা
  • 3 GB RAM + 32 GB স্টোরেজ: ১৪,৯৯৯ টাকা
  • 4 GB RAM + 128 GB স্টোরেজ: ১৭,৯৯৯ টাকা

এই দামগুলি বিভিন্ন অনলাইন এবং অফলাইন স্টোরে কিছুটা পার্থক্য হতে পারে। আপনি যদি অনলাইনে কেনাকাটা করেন, তবে কিছু ছাড় এবং অফার পেতে পারেন। এছাড়াও, Vivo Y16 এর দাম এবং মডেলের মধ্যে পার্থক্য আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী বেছে নিতে পারেন।

See also  বাজারে আসলো ডেল এর নতুন ল্যাপটপ Dell XPS 17 দেখুন Dell XPS 17 এর দাম কত ও ফুল স্পেসিফিকেশন

Vivo Y16 ফোনটি দুটি আকর্ষণীয় রংয়ে উপলব্ধ: Drizzling Gold এবং Stellar Black। এই রংগুলি ফোনটির সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে এবং ব্যবহারকারীদের আরও আকৃষ্ট করে।

বাংলাদেশে vivo y16 এর দাম
Image Credit: Ilonggo tech blog

স্পেসিফিকেশন

Vivo Y16 ফোনটি তার মাঝারি বাজেট এবং উন্নত ফিচারের জন্য বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয়। ফোনটির স্পেসিফিকেশন অত্যন্ত আকর্ষণীয় এবং এটি ব্যবহারকারীদের একটি দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা প্রদান করে। চলুন দেখি এই ফোনটির কিছু প্রধান স্পেসিফিকেশন:

ডিজাইন এবং বিল্ড

Vivo Y16 ফোনটির ডিজাইন খুবই চমৎকার এবং আকর্ষণীয়। এর বডি ডাইমেনশন হল ১৬৪ x ৭৫.৬ x ৮.২ মিমি এবং ওজন ১৮৪ গ্রাম। ফোনটির সামনের অংশ গ্লাস দিয়ে তৈরি এবং ফ্রেম ও পিছনের অংশ প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি। ফোনটি দুটি রংয়ে পাওয়া যায়: Drizzling Gold এবং Stellar Black, যা এটিকে একটি স্টাইলিশ লুক প্রদান করে।

ডিজাইন এবং বিল্ড
Image Credit: Sumeks Disway

ডিসপ্লে

Vivo Y16 ফোনটির ডিসপ্লে 6.51 ইঞ্চি, যা একটি IPS LCD প্যানেল। এর রেজোলিউশন 720 x 1600 পিক্সেল এবং অ্যাসপেক্ট রেশিও 20:9। ডিসপ্লের পিক্সেল ডেনসিটি 270 ppi, যা একটি ভালো মানের ভিজ্যুয়াল এক্সপেরিয়েন্স প্রদান করে। ডিসপ্লেটি মাল্টিটাচ সমর্থন করে, যা ব্যবহারকারীদের জন্য একটি সুবিধাজনক বৈশিষ্ট্য।

ডিসপ্লে
Image Credit- Stlukes Glenrothes

প্রসেসর এবং পারফরম্যান্স

Vivo Y16 ফোনটি চালিত হয় মিডিয়াটেক MT6765 হেলিও P35 চিপসেট দ্বারা, যা একটি অক্টা-কোর প্রসেসর (৪x২.৩ GHz কর্টেক্স-A53 এবং ৪x১.৮ GHz কর্টেক্স-A53) নিয়ে গঠিত। GPU হিসেবে রয়েছে PowerVR GE8320, যা গেমিং এবং গ্রাফিক্সের জন্য উপযুক্ত। এই প্রসেসরের মাধ্যমে ফোনটি মসৃণ পারফরম্যান্স প্রদান করতে সক্ষম।

প্রসেসর এবং পারফরম্যান্স
Image Credit- Noon

মেমোরি এবং স্টোরেজ

Vivo Y16 ফোনটির মেমোরি এবং স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টগুলি ব্যবহারকারীদের বিভিন্ন চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম। ফোনটি তিনটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে উপলব্ধ:

  • ৩ GB RAM + ৩২ GB স্টোরেজ
  • ৪ GB RAM + ৬৪ GB স্টোরেজ
  • ৪ GB RAM + ১২৮ GB স্টোরেজ

ফোনটিতে মাইক্রোএসডি কার্ড সাপোর্ট রয়েছে, যা আপনাকে স্টোরেজ বাড়ানোর সুযোগ দেয়।

See also  বাচ্চাদের খেলনা গাড়ির দাম কত ২০২৩। Baby Car Price In Bangladesh 2023

ক্যামেরা

Vivo Y16 ফোনটির ক্যামেরা সেটআপ খুবই চমৎকার এবং এটি বাংলাদেশে vivo y16 এর দাম বেশি হওয়ার পিছনে অন্যতম কারণ। এর পিছনে রয়েছে ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ, যার প্রধান ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল (ওয়াইড) এবং সেকেন্ডারি ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল (ম্যাক্রো)। এই ক্যামেরাগুলি LED ফ্ল্যাশ, প্যানোরামা এবং HDR সাপোর্ট করে। সামনের দিকে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা, যা ফটো এবং ভিডিওর জন্য যথেষ্ট।

ক্যামেরা
Image Credit- Congress Intercultural EU

ব্যাটারি

Vivo Y16 ফোনটির ব্যাটারি ক্যাপাসিটি ৫০০০ mAh, যা দীর্ঘ সময় ধরে ফোনটি ব্যবহার করতে সক্ষম করে। এই ব্যাটারিটি ১০ ওয়াটের চার্জিং সাপোর্ট করে, যা দ্রুত চার্জিং নিশ্চিত করে। দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফের কারণে এই ফোনটি ব্যবহারকারীদের জন্য খুবই সুবিধাজনক।

অপারেটিং সিস্টেম এবং UI

Vivo Y16 ফোনটি চালিত হয় Android 12 এর মাধ্যমে, যা Funtouch OS 12 ইউজার ইন্টারফেসের সাথে আসে। এটি ব্যবহারকারীদের একটি সহজ এবং মনোমুগ্ধকর ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতা প্রদান করে।

অপারেটিং সিস্টেম এবং UI
Image Credit- Espacopptencial

কানেক্টিভিটি এবং অন্যান্য ফিচার

Vivo Y16 ফোনটিতে বিভিন্ন ধরনের কানেক্টিভিটি অপশন রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে Wi-Fi 802.11 a/b/g/n/ac, ডুয়াল-ব্যান্ড, হটস্পট, ব্লুটুথ ৫.০, A2DP, LE, USB Type-C, এবং GPS। ফোনটিতে ডুয়াল সিম সাপোর্ট রয়েছে (ন্যানো-সিম, ডুয়াল স্ট্যান্ড-বাই) এবং এতে ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক রয়েছে।

ফোনটিতে বিভিন্ন ধরনের সেন্সর রয়েছে, যেমন ফিঙ্গারপ্রিন্ট (সাইড-মাউন্টেড), অ্যাক্সিলোমিটার, প্রক্সিমিটি সেন্সর, এবং কম্পাস। এছাড়া, ফোনটিতে FM রেডিও সাপোর্ট এবং OTG সাপোর্ট রয়েছে।

ভালো দিক

Vivo Y16 ফোনটির কিছু উল্লেখযোগ্য ভালো দিক রয়েছে। প্রথমত, এর বড় ব্যাটারি ব্যাকআপ, যা দীর্ঘ সময় ধরে ফোনটি ব্যবহার করতে সক্ষম করে। দ্বিতীয়ত, এর চমৎকার ডিজাইন এবং আকর্ষণীয় রং, যা ব্যবহারকারীদের আকৃষ্ট করে। তৃতীয়ত, ফোনটির সাইড মাউন্ট করা ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, যা দ্রুত এবং নিরাপদ আনলকিং সিস্টেম প্রদান করে।

খারাপ দিক

যদিও Vivo Y16 ফোনটির অনেক ভালো দিক রয়েছে, তবুও কিছু খারাপ দিকও আছে যা আপনাকে বিবেচনা করতে হতে পারে। প্রথমত, এর প্রসেসর মিডিয়াটেক MT6765 হেলিও P35, যা বর্তমান সময়ের কিছু উন্নত প্রসেসরের তুলনায় কিছুটা পিছিয়ে। এই প্রসেসরটি সাধারণ দৈনন্দিন কাজের জন্য যথেষ্ট হলেও, উচ্চমানের গেমিং এবং মাল্টিটাস্কিংয়ের ক্ষেত্রে এটি কিছুটা পিছিয়ে পড়তে পারে।

See also  টেকনো মোবাইল দাম ২০২৩। Tecno Mobile Price in Bangladesh 2023

দ্বিতীয়ত, এর ডিসপ্লে রেজোলিউশন 720 x 1600 পিক্সেল, যা বর্তমানে অনেক ফোনে ব্যবহৃত Full HD+ ডিসপ্লের তুলনায় কিছুটা কম। যদিও IPS LCD প্যানেলটি ভালো মানের, তবে উচ্চ রেজোলিউশনের অভাবে ভিডিও এবং গেমিংয়ের ক্ষেত্রে কিছুটা কম মানের হতে পারে।

তৃতীয়ত, সামনের ক্যামেরা মাত্র ৫ মেগাপিক্সেল, যা বাংলাদেশে vivo y16 এর দাম এর হিসেবে একটু কম। যদিও এটি সাধারণ সেলফি এবং ভিডিও কলের জন্য যথেষ্ট, তবে যারা উচ্চমানের সেলফি এবং ভিডিও করতে চান তাদের জন্য এটি কিছুটা হতাশাজনক হতে পারে।

উপসংহার

বাংলাদেশে Vivo Y16 একটি জনপ্রিয় এবং মধ্যম বাজেটের স্মার্টফোন যা ব্যবহারকারীদের মধ্যে ব্যাপক প্রশংসা অর্জন করেছে। এর আকর্ষণীয় ডিজাইন, বড় ব্যাটারি ব্যাকআপ, এবং উন্নত ফিচারগুলি বাংলাদেশে vivo y16 এর দাম এর পিছনে দায়ী এবং ফোনটিকে একটি সেরা পছন্দ হিসেবে তুলে ধরেছে। ৬.৫১ ইঞ্চি ডিসপ্লে, ১৩+২ মেগাপিক্সেল ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা, ৫০০০ mAh ব্যাটারি, এবং মিডিয়াটেক MT6765 হেলিও P35 প্রসেসর এই ফোনটিকে শক্তিশালী করে তুলেছে। এছাড়াও, এর Android 12 অপারেটিং সিস্টেম এবং Funtouch OS 12 ইউজার ইন্টারফেস ব্যবহারকারীদের একটি মসৃণ এবং মনোমুগ্ধকর অভিজ্ঞতা প্রদান করে। সামগ্রিকভাবে, Vivo Y16 একটি আদর্শ স্মার্টফোন যা কম বাজেটে উন্নত ফিচার এবং ভালো পারফরম্যান্স খুঁজছেন তাদের জন্য উপযুক্ত।

সাধারণ প্রশ্নাবলী

প্রশ্ন: Vivo Y16 স্মার্টফোনটি কবে বাংলাদেশের বাজারে লঞ্চ করা হয়? 

উত্তর: Vivo Y16 স্মার্টফোনটি ২০২২ সালের ১ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের বাজারে লঞ্চ করা হয়।

প্রশ্ন: বাংলাদেশে Vivo Y16 এর দাম কত? 

উত্তর: Vivo Y16 স্মার্টফোনটির 4 GB RAM + 64 GB স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১৫,৯৯৯ টাকা।

প্রশ্ন: Vivo Y16 স্মার্টফোনটির মোট কটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট বাংলাদেশে লঞ্চ করা হয়েছে? 

উত্তর: Vivo Y16 স্মার্টফোনটির তিনটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট বাংলাদেশের বাজারে লঞ্চ করা হয়েছে।

প্রশ্ন: Vivo Y16 স্মার্টফোনটির প্রধান বৈশিষ্ট্য কি? 

উত্তর: Vivo Y16 স্মার্টফোনটির প্রধান বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে রয়েছে ৬.৫১ ইঞ্চি IPS LCD ডিসপ্লে, ১৩+২ মেগাপিক্সেল ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা, ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা, ৫০০০ mAh ব্যাটারি, মিডিয়াটেক MT6765 হেলিও P35 প্রসেসর, এবং Android 12 (Funtouch OS 12)।